সিলিং ডিজাইন করুন পরিকল্পনামাফিক

Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin

একসময় বাড়ি নির্মাণে অন্দরের সাজসজ্জার মূল বিষয় ছিল ঘরের আসবাবপত্র। এরপর দেয়ালকে সুন্দর করে সাজানো, নিত্যনতুন নকশায় দৃষ্টিনন্দন করার ট্রেন্ড এলো, সাথে শুরু হলো সিলিংয়ের নকশায় সৃজনশীলতা আনা। গৃহসজ্জায় নান্দনিকতার ছোঁয়া দিতে সিলিং ডিজাইনিং হয়ে উঠলো গৃহসজ্জার গুরুত্বপূর্ণ অংশ।

বর্তমানে কর্পোরেট অফিস ভবন, অডিটোরিয়াম কিংবা বড় বড় হলঘরেই সিলিং নান্দনিক সব ডিজাইনের ব্যবহার বেশি হলেও বাসাবাড়িতেও সিলিং ডিজাইন করতে ভোলেন না সৌখিন মানুষেরা। আর সিলিংয়ের নকশা বাড়ি নির্মাণের পর নয়, করলে নির্মাণকালেই করে ফেলতে হবে কিছু বিষয় মাথায় রেখে। চলুন, সেসব জেনে নেয়া যাক।

১. ঘরের আকৃতি

নকশা বাছাইয়ের পূর্বশর্ত হলো ঘরের আকৃতির সাথে সামঞ্জস্য রেখে নকশা বাছাই করা। লম্বা, আয়তাকার কিংবা বর্গাকার ঘরে একরকম, গোলাকার ডাইনিং রুম হলে একরকম, বড় হলঘর হলে একরকম, আর বাথরুমের মতো সংক্ষিপ্ত পরিসরে একরকম নকশা।

২. যেমন ইন্টেরিয়র তেমন সিলিং

সিলিংয়ের ডিজাইন ঠিক করার আগে অবশ্যই ঘরের ইন্টেরিয়র ডিজাইন ঠিক করতে হবে। ইন্টারিয়রের রং, প্রধান উপাদান (কাঠ, গ্লাস, মার্বেল কিংবা স্টিল), অ্যাম্বিয়েন্স- সবকিছুর সাথে সামঞ্জস্য রেখেই ঠিক করতে হবে সিলিংয়ের নকশা।

৩. আলোকসজ্জা

সিলিংয়ে আলোকসজ্জার ক্ষেত্রে গুরুত্ব দিতে হবে ঘরের আসবাবপত্রের অবস্থানের ওপর। ঘরের প্রধান আসবাবপত্র এবং অন্যান্য সৌন্দর্যবর্ধক উপাদানগুলো যদি দেয়াল বরাবর হয়, তাহলে আলোকসজ্জাও ঘরের দেয়ালগুলোর নিকটবর্তী হতে পারে। এতে দেয়ালের রংও ফুটে ওঠে। আবার লক্ষ্য যদি থাকে পুরো ঘরে আলোর সুষম বন্টন, তাহলে সিলিংয়ের কেন্দ্র বরাবর আলোকসজ্জাই মানানসই হবে।

৪. উচ্চতা মাথায় রাখা জরুরি

সিলিংয়ের যেকোনো নকশা নির্ধারণ করার পূর্বে অবশ্যই উচ্চতা বিবেচনা করতে হবে, বিশেষ করে ড্রপ সিলিংয়ের ক্ষেত্রে, অর্থাৎ যেসব সিলিং প্রধান সিলিংয়ের সাথে অতিরিক্ত একটি সিলিং হিসেবে সংযুক্ত থাকে। তাছাড়া সিলিং থেকে ক্রিস্টাল লাইট, ফ্ল্যাশ লাইট বা নানারকম ঝাড়বাতি ঝোলানোর জন্য সিলিংয়ের উচ্চতা যথেষ্ট হওয়া বাঞ্ছনীয়।

৫. রং নির্বাচন

সিলিংয়ের রং নির্বাচনে দেয়ালের রঙের চেয়ে এখন অধিক গুরুত্ব দেয়া হয় ঘরের আসবাবপত্রকে। পুরো ঘরটি যদি একটি বিশেষ থিমের রঙ দিয়ে সাজানো হয়, সিলিংও সেই রঙেই সাজিয়ে ফেলতে হবে। আবার ঘরে কেমন আলো চান, তার উপরও নির্ভর করবে সিলিংয়ের রং। কারণ আলোকসজ্জা করবার পর সিলিং থেকে আলো প্রতিফলিত হবে পুরো ঘরেই।

৬. প্রতিধ্বনি এড়াতে চাইলে

সিলিংয়ের নকশা নির্বাচনে প্রতিধ্বনি হতে পারে বড় মাথাব্যথার কারণ, বিশেষত বড় হলঘর, কিংবা বসার ঘরে। ড্রপ সিলিং ব্যবহারে সিলিংয়ের উচ্চতা কমে আসে এবং লম্বা ঘরে কথার প্রতিধ্বনি হয়। এ থেকে মুক্তির উপায় অ্যাকাউস্টিক (Acoustic) সিলিং, যা শব্দ প্রতিধ্বনিত না করে শুষে নেয়।

নকশা নির্বাচনে যে বিষয়গুলোর উপর নজর রাখতে হবে, তা তো জানা হলো। এবার কিছু নান্দনিক সিলিং ডিজাইন সম্পর্কে জানা যাক।

হাই গ্লস সিলিং (High gloss)

এটি সিলিং ডিজাইনে একটি সাম্প্রতিক ট্রেন্ড। ড্রপ সিলিং বা ভারী আলোকসজ্জা ছাড়াই ঘরে আলোর সুষম বণ্টন এবং আরামদায়ক এম্বিয়েন্স তৈরির জন্য এ ধরনের সিলিং ব্যবহার করা হয়। মূলত সিলিং সর্বোচ্চ পরিমাণ মসৃণ করাই হাই গ্লস সিলিংয়ের মূল আকর্ষণ। মসৃণ সিলিংয়ে হালকা উজ্জ্বল রঙের মসৃণ প্রলেপ স্বচ্ছ হয় এবং আলোর প্রতিফলনও করে। পাশাপাশি এরূপ সিলিং ডিজাইন ব্যবহারে মনে হয় সিলিংয়ের উচ্চতা বেড়ে গেছে। এরূপ সিলিং অনেক সময় স্বচ্ছ কাচের মতোও হয় এবং ঘরের মেঝে এতে প্রতিফলিত হয়।

প্ল্যান্ট (Plant) সিলিং

শিল্পায়ন, নগরায়ন, সবকিছুতেই এখন সবুজায়নের উপর সর্বোচ্চ জোর দেয়া হয়। বড় বড় অবকাঠামোতে চলছে সবুজের আত্মীকরণ। বাসাবাড়ির ক্ষেত্রেও ভিন্ন নয় ব্যাপারটা। অনেকেই ঘরের ভেতরে প্রাকৃতিক আবহ তৈরির জন্য গাছগাছালি ব্যবহার করেন। তবে গাছ/ঘাস লতাপাতা যদি টবে না থেকে সিলিং থেকে ঝুলে যায়, তাহলে কেমন হয় বলুন তো? সহজ ভাষায় বললে- প্ল্যান্ট সিলিং হলো সিলিং থেকে বেশ কয়েক প্রকারের সৌন্দর্যবর্ধক লতা-গুল্ম ঝুলিয়ে দেয়ার পদ্ধতি। এগুলো ঝোলাবার জন্য কাঠের ব্লক ব্যবহারই সবচেয়ে সুবিধাজনক।

কাঠের নকশা

পাথুরে যুগের পর মানুষ বসতবাড়ি নির্মাণে কাঠের ব্যবহারই করেছে সবচেয়ে বেশি। সময়ের সাথে বাড়িগুলো কলেবরে বড় হয়েছে, আকাশপানে যাত্রা করে উঠেছে অনেক উপরে। এসব বাড়ি কাঠে নির্মাণ হয় না এখন আর। তবে সৌন্দর্যবর্ধনের জন্য ঠিকই কাঠের কাছে ফিরেছে মানুষ।

মসৃণ গ্লসি সিলিংয়ে অসম আকৃতির মসৃণ কাঠ ব্যবহারে চমৎকার সিলিং তৈরি হয়। আবার ড্রপ সিলিংটি কাঠের হলে তা অন্যান্য ড্রপ সিলিংয়ের চেয়ে অভিজাত মনে হয়। সিলিং কাঠের নানা কারুকাজও স্থাপন করে থাকেন অনেকে।

আর্ট

সিলিংয়ে অতিরিক্ত কোনোকিছু যোগ না করে কেবল দস্তুরমতো রং করে ফেললেও সিলিং হতে পারে সাধারণ সিলিংয়ের চেয়ে সুন্দর। তবে যেনতেন রং নয়, সাধারণ ত্রিমাত্রিক আবহ ফুটিয়ে তোলা ডিজাইনই সিলিংয়ে সাধারণ একটি চিত্রকে অসাধারণ করে তুলতে পারে।

ভাস্কর্য

সিলিংয়ে খোদাই করার মতো ভাস্কর্যের গড়ন গড়ে তোলার চল এখনো রয়েছে। মসৃণ সিলিংয়ে উপর গৃহে বসবাসকারীর রুচি অনুযায়ী ফুটিয়ে তোলা হয় নানা আকৃতি। ভাস্কর্য ফুটিয়ে তোলা হলে সিলিং সাধারণত সাদা রাখা হয়, তবে অনেকেই রং করতে ভালোবাসেন ভাস্কর্যসমেত।

স্কাইলাইট

যদিও স্কাইলাইট সিলিং সাধারণত বাণিজ্যিক কাজেই ব্যবহৃত হয়, যেমন- রেস্টুরেন্ট, অফিসের মিটিং কক্ষে কিংবা শিল্প কারখানায়, তবে সৌখিন মানুষজন বসতবাড়িতেও স্কাইলাইট ব্যবহার করে থাকেন। স্কাইলাইট হলো গ্লাসনির্মিত বাহারি ডিজাইনের সিলিং যা দিনে সূর্যের আলোয় ঘরকে আলোকিত রাখে। এর একটাই অসুবিধা, চাইলেও টপ ফ্লোর ব্যতীত অন্য কোনো ফ্লোরে স্কাইলাইট ব্যবহার করতে পারবেন না।

এছাড়াও রুচিশীল মানুষজন অসংখ্য রঙের, ধরনের সিলিং ডিজাইন ব্যবহার করেন। যেমন – ঘরে ক্লাসিক লুক আনবার জন্য ‘ব্রিক অ্যান্ড স্টোন’-এর ব্যবহার, মেটাল সিলিং, ফেব্রিক সিলিং, স্টেনসিল, গ্লাস সিলিং ইত্যাদি।

No comment yet, add your voice below!


Add a Comment

বাড়ি বানাতে ইচ্ছুক ব্যক্তিদের জন্য একটি পরিপূর্ণ ওয়েব পোর্টাল- হোম বিল্ডার্স ক্লাব। একটি বাড়ি নির্মাণের পেছনে জড়িয়ে থাকে হাজারও গল্প। তবে বাড়ি তৈরি করতে গিয়ে পদে পদে নানা ধরণের প্রতিবন্ধকতার মুখোমুখি হই আমরা। এর মূল কারণ হচ্ছে সাধারণ মানুষের মাঝে বাড়ি তৈরির নিয়ম নীতি সম্পর্কে ধারণার অভাব। সেই অভাব পূরণের লক্ষ্যে যাত্রা শুরু করেছে হোম বিল্ডার্স ক্লাব। আমাদের রয়েছে একদল দক্ষ বিশেষজ্ঞ প্যানেল। এখানে আপনি একটি বাড়ি তৈরির যাবতীয় তথ্য, পরামর্শ ও সাহায্য পাবেন।

© All Rights Reserved by Home Builders Club